গত পর্বে এরই বিপরীত ভাই ভেন্টাব্ল্যাক বা বিশ্বের সবচেয়ে কালো বস্ত সম্পর্কে আলোচনা করা হয়েছিল ।এবার চলে এসেছে বিশ্বের সবথেকে সাদা বস্তটির কথা।আগের পোষ্টটি এখানে…

Google.com

আমরা সবাই আমাদের জীবনে অনেক সাদা বস্তু দেখেছি, কিন্ত কখনো ভাবিনি যে সবচেয়ে সাদা বস্তু কোনটি! এখনকার সময় এ মানব সৃষ্ট বা কৃত্তিম ভাবে তৈরী সবচেয়ে সাদা বস্তুটি হলো স্পেক্ট্রালন! বৈজ্ঞানিক যন্ত্রপাতিতে ব্যাবহার এর জন্য ল্যাবসফেয়ার কোম্পানি এই বস্তুটিকে বানিয়েছিলো।এই বস্তুটি আবিস্কার হওয়ার আগ পর্যন্ত সবচেয়ে সাদা বস্তু ছিলো টাইটানিয়াম ডাই-অক্সাইড

স্পেক্ট্রালন, আলোকসীমার মধ্যে প্রায় ৯৯% আলো প্রতিফলিত করতে পারে।যে কারনে এটি টাইটানিয়াম ডাই-অক্সাইডের চেয়ে বেশি আলোর প্রতিফলন করে।কারন এই টাইটানিয়াম ডাই-অক্সাইড নীল ক্ষেত্রে কম আলো প্রতিফলিত করতে সক্ষম। কিন্ত স্পেক্ট্রালন সব ক্ষেত্রেই সমান ভাবে কার্যকরী।

Google.com

ল্যাবস্ফেয়ারের তৈরি এই স্পেক্ট্রালন হলো এক ধরনের থার্মোপ্লাস্টিক।এটাকে বিভিন্ন ভাবে নানা ক্ষেত্রে ব্যাবহার করা হয়।কাজের উপযোগি করতে একে নানা আকৃতি দেওয়া হয় এবং বিভিন্ন বস্তুর উপর প্রলেপ এর মতো করেও ব্যাবহার করা হয়। এটা যেকোনো চেনা বস্তুর সমতলের প্রায় ২% থেকে ৯৯% আলো প্রতিফলিত করে দিতে সক্ষম।এবং এই প্রতফলন এটি যেকোন রস্মি বা আলোক ক্ষেত্রে সমান ভাবে দিতে পারে। এই স্পেক্ট্রালন বস্তুগুলো স্পেক্ট্রাম সমতল ক্ষেত্রে ২৫০ ন্যানোমিটার থেকে ২৫০০ ন্যানোমিটার জায়গায় +/-৪ % থেকে +/-১% সীমার উপর থাকে। স্পেক্ট্রালন সাধারণত ৪০০° তাপ সহন করতে সক্ষম হয়।কারন এটি অ্তি ঘন মাত্রার পলি-ইথিলিনের ব্যাবহার করা হয়।এই স্পেক্ট্রালন ব্যাবহার এর জন্যে বিভিন্ন আকারের বানানো হয়।এর মধ্যে বেশি ব্যাবহার হয় গোলাকার এবং প্লেট আকৃতির এবং এদের ব্যাবহার এর প্রয়োজন অনুযায়ী বিভিন্ন গ্রেড এর বানানো হয়,যেমনঃঅপটিকাল গ্রেড,লেজার গ্রেড,স্পেস গ্রেড।

Google.com

 

আরো দেখতে পারেন ; বিশ্বের সবচেয়ে কালো বস্তু

 

প্রকৃতিতে প্রাপ্ত সাদা বস্তু ; ছাইপোছাইলাস বিটল ।কিন্ত এটি সবচেয়ে সাদা বস্তু হলেও এটি মানব সৃষ্ট।প্রকৃতি গত ভাবে সবচেয়ে সাদা বস্তুটি হলো মুলত একটি গোবরে পোকা।এটাকে ছাইপোছাইলাস বিটল(cyphochilus beetle)বলে।এটি দক্ষিন এশিয়ার একটি সাধারন আখের পোকা।বিজ্ঞানীরা পরিক্ষার মাধ্যমে এই পোকা টিকে প্রকৃতি হতে প্রাপ্ত সবচেয়ে সাদা বস্তু হিসেবে চিহ্নিত করেছে। এটার সারা শরীর এর লমবা দাগ এতোটাই সাদা যে বিজ্ঞানী পেটে ভুকুসিক (এক্সেটার ইউনিভার্সিটি ইংল্যান্ড)এটাকে সবচেয়ে সাদা প্রকৃতি গত বস্তু হিসেবে ঘোষণা দেয়। এই দাগ গুলো অতিব রকমের চিকন।এটার দৈঘ্য লোহিত রক্ত কনিকার অর্ধেক প্রায়। টাইটানিয়াম ডাই-অক্সাইড ; প্রকৃতি থেকে প্রাপ্ত সাদা বস্তুর মধ্যে ছাইপোছাইলাস বিটল এর পরেই রয়েছে টাইটানিয়াম ডাই-অক্সাই। টাইটানিয়াম ডাই-অক্সাইড ই একমাত্র যেটা ব্যাবসায়ীক কাজে ব্যাবহার এর জন্য অনুমতি দেওয়া হয়।

এই রকম আরো  আশ্চর্যজনক আর্টিকেল পেতে ও জানতে  আমাদের সাথে থাকুন।