বাজারে ওয়ালটন নিয়ে এসেছে বড় ডিসপ্লে যুক্ত একটি নতুন স্মার্টফোন প্রিমো এনএফ৪।  ডিভাইসটির অন্যতম আকর্ষণ এর ৫.৯৯ ইঞ্চি সাইজের ১৮ঃ৯ রেশিও সম্পন্ন ডিসপ্লে।  ট্রেন্ড এর সাথে তাল মিলিয়ে এতেও পাওয়া যাবে ব্যাকগ্রাউন্ড গ্র্যাডিয়েন্ট কালার ফিনিস।  তাছাড়া ডিভাইসটিতে থাকছে ১ জিবি র‍্যাম,৪জি কানেক্টিভিটি, এন্ড্রয়েড ৮.১ অরিও এর গো এডিশন।  তাছাড়াও ব্যাটারি, ক্যামেরাতেও দামের দিক দিয়ে এই ডিভাইসটি অনেকের থেকে এগিয়ে।

একনজরে প্রিমো এনএফ৪ঃ এন্ড্রয়েড ৮.১ অরিও এর গো এডিশন, ১ জিবি র‍্যাম এবং ৮ জিবি রম – পাশাপাশি ৬৪ জিবি পর্যন্ত এক্সপান্ডেবল মেমোরি কার্ড সাপোর্ট, ১.২৮ গিগাহার্জ কোয়াড কোর প্রসেসর, ৫.৯৯ ইঞ্চি ফুল ভিউ আইপিএস ডিসপ্লে,উন্নত ৮ মেগাপিক্সেল রিয়ার এবং ৮ মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা; আর সম্পূর্ণ ডিভাইসকে ব্যাকআপ দেয়ার জন্য ৩২০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ক্ষমতার ব্যাটারি। এর দাম ৬৪৯৯ টাকা।

স্মার্টফোনটির এর সাথে পাওয়া যাবেঃ প্রথমত প্রিমো এনএফ৪ ডিভাইসটি, একটি চার্জার এডাপ্টার, একটি (২.০) ইউএসবি কেবল, একটি ইয়ারফোন, ডিসপ্লেতে যুক্ত প্রটেকশন গ্লাস, একটি ওয়ারেন্টি কার্ড, একটি সেফটি ইন্সট্রাকশন এবং ব্যাক কভার।

৪জি কানেক্টিভিটিঃ ডিভাইসটি ৪জি কানেক্টিভিটি সাপোর্ট করবে।

ডিজাইনঃ প্রিমো এনএফ৪ ডিভাইসটি রুবি ব্ল্যাক, টুলাইট ব্লু এবং টুলাইট পারপেল তিনটি কালারে বাজারে পাওয়া যাবে।  ডিজাইন এর দিক দিয়ে দামের তুলনায় এটি ভালই প্রিমিয়াম।

হার্ডওয়্যারঃ ডিভাইসটিতে থাকছে ১.২৮ গিগাহার্জ কোয়াড কোর প্রসেসর, যার সাথে পুরো সিস্টেমকে ব্যাকআপ দিবে একটি ১ জিবি ডিডিআর৩ র‍্যাম।  যদিও এতে ৮ জিবি ইন্টারনাল মেমোরি থাকছে, এর পাশাপাশি ব্যাবহারকারি এতে ৬৪ জিবি পর্যন্ত ‘এক্সটারনাল মাইক্রো এসডি কার্ড’ সাপোর্ট পাবেন।  এতে গ্রাফিক্স প্রোসেসিং ইউনিট হিসেবে থাকবে  PowerVR Rogue GE8100 জিপিইউ।  সব মিলিয়ে টুকটাক মাল্টি টাক্সিং এবং ২ডি গেমিং এর ক্ষেত্রে এই ফোনে কোন সমস্যা হওয়ার কথা নয়।

রিয়ার ক্যামেরাঃ ডিভাইসটির অন্যতম একটি আকর্ষন  এর সামনে পেছনে থাকা দুইটি ক্যামেরা সেন্সর।  এর পেছনে পাওয়া যাবে  সনির ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সেন্সর ।

ফ্রন্ট ক্যামেরাঃ আর একইভাবে সামনে সেলফি ক্যামেরা মডিউল হিসেবে থাকছে অমনি-ভিসন ৮ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা সেন্সর।

ডিসপ্লেঃ ডিভাইসটির মূল আকর্ষণ হচ্ছে এর ডিসপ্লে, এই ডিভাইসে  একটি ৫.৯৯ ইঞ্চি এর বড় আইপিএস প্যানেল ডিসপ্লে পাওয়া যাবে, যা আসলে আপনার জন্য এই ফোনটি কেনার মুখ্য কারন হতে পারে।  বাজেট এর ভেতর যদি আপনি ভালো মানের একটি বড় ডিসপ্লে এর ফ্যাবলেট  টাইপের ডিভাইস খোঁজেন, তবে এটি পছন্দ করতে পারেন।  ডিসপ্লেটি সাইড দিয়ে ২.৫ ডি কার্ভড।

সফটওয়্যারঃ ডিভাইসটির হার্ডওয়্যার এর কথা মাথায় রেখে এতে দেয়া হয়েছে এন্ড্রয়েড এর লাইটেস্ট ভার্সন ‘এন্ড্রয়েড ৮.১ অরিও এর গো’ এডিশন।  যেখানে গুগল এর  এন্ড্রয়েড গো ভার্সন অ্যাপ গুলো পাওয়া যাবে।


সম্পূর্ণ ডিভাইসকে ব্যাকআপ দিবে ৩২০০ এমএএইচ ক্ষমতার একটি লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি।  যা দিয়ে অন্তত সারাদিন ব্যাকআপ পাওয়া যাবে।  তাছাড়াও এতে  থাকছে একটি ফাস্ট ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর।  এর আগের প্রিমো এনএফ৩ এর বাল্কি ডিজাইন এর থেকে নতুন এই প্রিমো এনএফ ৪ এর ডিজাইনে এবং অন্যান্য দিক দিয়ে অনেক অনেক আপগ্রেড এসেছে।

Please follow and like us:
20